Digital Marketing

ডিজিটাল মার্কেটিং (Digital Marketing)

আপনি যদি নিজের ব্যাবসায় (business)  জলদি সফলতা পেতে চান, তাহলে ডিজিটাল মার্কেটিং আপনার সফলতায় গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন পারে। সেই দিন এখন নেই যেখানে আমরা কোনো প্রোডাক্ট (product) মার্কেটিং(marketing) করার জন্য মানুষের ঘরে ঘরে বা দোকানে দোকানে যেতাম। এগুলো মার্কেটিং এর পুরোনো নিয়ম যেগুলি আজ কাজে আসেনা এটা বলা ঠিক হবেনা  তবে এই প্রক্রিয়া গুলিতে, সময় অনেক নষ্ট হওয়ার সাথে সাথে আপনার টাকাও অনেক খরচ করতে হয়। এর বাইরে এই পুরোনো মার্কেটিং এর প্রক্রিয়া ব্যবহার করে আমরা আমাদের product বা service অধিক লোকেদের কাছে প্রচার বা মার্কেটিং করতে পারিনা।

এর বাইরেও, যদি আপনি কোনো পণ্য (product), online service বা offline business এর জন্য কাস্টমার খুঁজছেন, তাহলে ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে অনেক অনেক কম খরচে “লক্ষ্যবস্তু কাস্টমার” (targeted customer) পেয়ে যেতে পারবেন। সনাতন পদ্ধতিতে কোন বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য কোম্পানিগুলো কোনো বিজ্ঞাপন (advertisement) এমন জায়গায় দেখানো হয় বা প্রচার করা হয় যেখানে লোকের ভিড় বেশি এবং যেখানে লোকেদের নজর বা ধ্যান বেশি পড়ার সুযোগ হতো।                              যেমন, রেডিও (radio), টিভি (tv) বা রাস্তার পাশে। এমন অনেক বিজ্ঞাপনের নিয়ম তারা ব্যবহার করতেন। কিন্তু, আজ আপনি সবথেকে বেশি ভিড় বা লোকেদের সংখ্যা পাবেন সোশ্যাল মিডিয়াতে (social media) এবং ইন্টারনেটে (internet)। তাই, এখানে যদি কোনো product বা service বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে লক্ষ লক্ষ লোকেদের কাছে অনেক কম সময়ে প্রচার বা marketing করতে চাই, তাহলে  পুরোনো marketing এর নিয়ম ভুলে Digital marketing এর সঙ্গে আগাতে হবে।এবং, তাই আজ আমি আপনাদের “ডিজিটাল মার্কেটিং কি”, “কিভাবে ডিজিটাল মার্কেটিং এর ব্যবহার করবেন” , এর প্রকার ভেদ এবং ডিজিটাল মার্কেটিং এর লাভ, এগুলির বেপারে সবটাই বিস্তারিত বলবো।

ডিজিটাল মার্কেটিং কি ? (What is digital marketing?)

ডিজিটাল এবং মার্কেটিং, দুটো শব্দের অর্থ ভিন্ন । এক্ষেত্রে, Digital মানে হলো এমন একটি টেকনোলজি যেটা কম্পিউটার বা যেকোনো electronic device কে বুঝায় যেটা বিশেষ ভাবে ইন্টারনেট বা যেকোন নেটওয়ার্ক এর সাথে সংযুক্ত হতে পারে এবং, মার্কেটিং  হলো, যেকোনো ব্যাবসা (business), প্রোডাক্ট (product), সার্ভিস বা ব্যক্তিগত উদ্দেশ্য গ্রাহকের কাছে বিভিন্ন উপায় বা মাধ্যম ব্যবহার করে প্রচার করা। প্রচারের উদ্দেশ এটাই,যাতে আপনার প্রচার করা পণ্য সহজে এবং দ্রুত বিক্রয় করা বা আপনার ব্যবসার পরিচিতি লাভ করা।

ডিজিটাল মার্কেটিং বলতে আমরা কি বুঝি ? এর অর্থ কি ?

ডিজিটাল শব্দের অর্থ ইন্টারনেটের সাথে সংযুক্ত হতে পারে এমন যে কোন ডিভাইস এবং মার্কেটিং শব্দের অর্থ হলো, যেকোনো product বা service গ্রাহকের কাছে প্রচার করা বা লোকেদের এ বিষয়ে জানানো এবং তাই, Digital marketing এর অর্থ অনেক সোজা। ডিজিটাল মার্কেটিং সেই সব ধরণের মার্কেটিং বা প্রচারের প্রচেষ্টা বা মাধ্যমকে বোঝায় যেগুলি বিশেষভাবে ইলেক্টনিক ডিভাইসের মাধ্যমে ব্যাবসা করা বা ব্যাবসায়ের প্রচার করা।আজ নিজের উদ্দেশ্যসাধনের উপায় হিসেবে অনেক কোম্পানি বা ব্যবসা এই ডিজিটাল মার্কেটিং এর অনেক চ্যানেল বা ভাগের ব্যবহার করছেন। এই ভাগ গুলির মধ্যে বিশেষ ভাবে – সার্চ ইঞ্জিন optimization, social media, email, অনলাইন বিজ্ঞাপন (ppc) এবং নিজের একটি website সেরা।

এই মাধ্যম বা উপায় গুলির ব্যবহার করে আজ, যেকোনো কোম্পানি নিজের ব্যবসা (business) বা পণ্য (product) অনেক কম খরচে দেশ বিদেশের যেকোনো জায়গায় যেকোনো শহরে বা গ্রামে নিজের পণ্যর প্রচার বা মার্কেটিং করছেন এবং ইন্টারনেটের মাধ্যমে লক্ষবস্ত গ্রাহক পেয়ে যাচ্ছেন।  এটাই হলো “ডিজিটাল মার্কেটিং” এবং এ আজ মার্কেটিং এর অনেক শক্তিশালী উপায় বা মাধ্যম। আজ ইন্টারনেট ব্যবহার করা লোকেদের সংখ্যা অনেক অনেক বেড়ে গেছে এবং আসছে সময়ে এর ব্যবহার আরো বাড়বে।.

লোকেরা আজ যেকোনো জিনিস ইন্টারনেটে খুজেঁ বা সার্চ করেন, ভিডিও দেখেন বা সোশ্যাল মিডিয়া সাইট গুলিতে নিজের সময় দেন। এবং, আজ লোকেরা ইন্টারনেটের একটানা (continuous) ব্যবহার না করে থাকতেই পারেনা। এমনিতে, বিভিন্ন কোম্পানি বা business নিজের পণ্য বা সার্ভিস প্রচার বা মার্কেটিং করার জন্য ইন্টারনেট থেকে আর কি ভালো সুযোগ বা জায়গা পাবেন, যেখানে সব ধরণের চাহিদা বা ইচ্ছে রাখা লক্ষবস্ত গ্রাহকের কোনো সীমাবদ্ধতা নেই।

ডিজিটাল মার্কেটিং এর বিভিন্ন মাধ্যমের ব্যবহার করে আপনি নিজের ব্যবসার সাথে জড়িত কাস্টমার বা লক্ষবস্তু গ্রাহকের সাথে সংযোগ (connect) হতে পারবেন সেখান থেকে যেখানে তারা অনলাইন ইন্টারনেটে নিজেদের বেশি সময় খরচ করেন। ডিজিটাল মার্কেটিং এর বিভিন্ন মার্কেটিং tools ব্যবহার করে যেমন, email marketing, digital advertising (ppc), social media marketing, search engine বা blog / website আপনি নিজের business brand তৈরি করতে পারবেন।

Digital marketing এর বিভিন্ন প্রকার (Types of digital marketing)

কোম্পানি বা business owner’s রা অনেক মাধ্যম বা প্রক্রিয়া ব্যবহার করে নিজের product বা service অনলাইন ইন্টারনেটের দ্বারা মার্কেটিং করতে পারেন। এই উপায় বা প্রকারের মধ্যে এগুলি সেরা –

  • সার্চ ইঞ্জিন মার্কেটিং – আপনারা হয়তো অনেক সময় লক্ষ করেছেন, আমরা যখন Google search এর মাধ্যমে কিছু সার্চ করি, তখন প্রথম ৩ থেকে ৫ টি সমাধান বা সার্চ ইঞ্জিন রেজাল্টের মধ্যে আপনি বিজ্ঞাপন দেখবেন। বিজ্ঞাপন গুলি সাধারণ ভাবেই দেয়া থাকে এবং তার আগে [Ad] বলে লেখা থাকে। বিভিন্ন কোম্পানি বা business owners রা #Google Adword দ্বারা গুগল সার্চ ইঞ্জিন বা অন্য অনলাইন সার্চ ইঞ্জিন গুলিতে এভাবে বিজ্ঞাপন দেখিয়ে ব্লগ বা ওয়েবসাইটের দ্বারা নিজের product বা service এর মার্কেটিং, প্রচার বা গ্রাহক খোঁজার চেষ্টা করাকেই #search engine marketing বলা হয়।
  • সোশ্যালমিডিয়ামার্কেটিং – সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং হলো এমন একটি মার্কেটিং এর উপায় যেখানে বিভিন্ন অনলাইন সোশ্যাল মিডিয়া ওয়েবসাইট যেমন “#Facebook“, “#Twitter” বা “#Instagram” ইত্যাদি ব্যবহার করে brand, product বা service প্রোমোট করা হয়। আজ সব ধরণের গ্রাহক বা ভোক্তা (consumer) সোশ্যাল মিডিয়ার মাদ্ধমে পাওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি। কারণ, স্কুলে পড়া স্টুডেন্ট থেকে retired হওয়া বয়স্ক লোক অব্দি সবাই social media websites ব্যবহার করেন। এবং, তাই বিভিন কোম্পানিরা #social media marketing এর দ্বারা, তাদের পণ্যর (product) ভাগের (category) হিসেবে অনেক সহজে লক্ষবস্ত ভোক্তা বা গ্রাহক পেয়ে যান।
  • Email মার্কেটিং – #Email marketing ডিজিটাল মার্কেটিং এর এমন একটি ভাগ বা মাধ্যম, যেখানে কোনো পণ্য, ব্র্যান্ড বা সার্ভিস এর মার্কেটিং বা প্রচার ইমেইল এর মাধ্যমে করা হয়। সাধারনে আমরা যেভাবে ইমেইল করি সেটা ইমেইল মার্কেটিং নয়। এখানে, যেই service বা product বা brand আপনি প্রচার করতে চাচ্ছেন সেটার বিষয়ে আপনার ভালো করে message লিখতে হয়। তার পর, সেই message ইমেইল এর মাধ্যমে হাজার হাজার লোকেদের ইমেইল আইডিতে পাঠিয়ে দিতে হয়।এতে আপনি যেকোনো জিনিস বা পণ্যর প্রচার বা প্রমোশন হাজার হাজার লোকেদের কাছে এক সাথেই একটি ইমেইল এর মাধ্যমেই করতে পারবেন। আজ বিভিন্ন online marketer রা ইমেইল মার্কেটিং এর প্রচুর ব্যবহার করছেন এবং তাদের service বা product এর প্রমোশন করছেন।
  • Video marketing – ইউটিউবের চ্যানেল বানিয়ে তাতে নিজের business বা brand এর ব্যাপারে ভিডিও বানিয়ে আজ অনেক কোম্পানি বা business owners রা ভিডিওর মাধ্যমে নিজের ব্যবসার প্রচার বা প্রমোশন করছেন। আপনি YouTube এ গিয়ে যেকোনো কোম্পানির বিষয়ে সার্চ কোরে দেখুন, আপনি তাদের official product বা service এর অনেক ভিডিও পেয়ে যাবেন। ইউটিউব, গুগল সার্চ এর পর দ্বিতীয় সবথেকে বড়ো সার্চ ইঞ্জিন, যেখানে প্রতি দিন লক্ষ লক্ষ লোকেরা ভিডিও দেখতে আসেন। তাই, যেকোনো জিনিসের বা পণ্যর প্রমোশন (promotion) করার জন্য ভিডিও বানিয়ে YouTube এ ছাড়াটা অনেক লাভজনক হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে।
  • Affiliate marketing – এফিলিয়েট মার্কেটিং ডিজিটাল মার্কেটিং এর এমন একটি মাধ্যম, যেখানে বিভিন্ন কোম্পানিরা কমিশন (commission) এর লোভ দেখিয়ে বিভিন্ন অনলাইন ওয়েবসাইট বা ব্লগে তাদের brand বা product এর মার্কেটিং বা প্রমোশন করেন। আপনার যদি একটি ব্লগ বা ওয়েবসাইট আছে, তাহলে এফিলিয়েট মার্কেটিং কি ? এর দ্বারা টাকা আয় কিভাবে করতে পারবেন, এ বেপারে অবশই জেনেনিন।
  • Blog বা website দ্বারা মার্কেটিং – আজ আপনি সব ধরণের কোম্পানির একটি ব্লগ ও ওয়েবসাইট অবশই পাবেন। এর কারণ হলো, আজ লোকেরা সব ধরণের ছোট বোরো প্রশ্নোর উত্তর ইন্টারনেটে সার্চ করেন। এখন, আপনি যদি নিজের কোম্পানি, business বা product এর সাথে জড়িত প্রশ্নোর উত্তর বা সমাধান একটি ব্লগ বা ওয়েবসাইট বানিয়ে আর্টিকেল এর মাধ্যমে লোকেদের দেন, তাহলে সেই blog বা ওয়েবসাইটে আশা ভিসিটর বা ট্রাফিক আপনার brand বা product প্রমোশন করার অনেক ভালো মাধ্যম হিসেবে প্রমাটিন হতে পারে।এর বাইরে, ওয়েবসাইট বা ব্লগের মাধ্যমে যেকোনো জিনিস, product, service বা company র ব্যাপারে লোকেরা ঘরে বসেই ইন্টারনেটের মাধ্যমে জেনেনিতে পারবেন। তাই, এ যেকোনো জিনিস অনলাইন মার্কেটিং করার অনেক গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হিসেবে প্রমাণিত হতে পারে।নিজের brand বা business এর একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগ আজ সবাই তৈরি করছেন এবং এ ডিজিটাল মার্কেটিং এর অনেক জরুরি সাধন হিসেবে প্রমাণিত হচ্ছে।তাহলে আশাকরি, ডিজিটাল মার্কেটিং এর বিভিন্ন প্রকারভেদ এর ব্যাপারে আপনারা ভালো করে জেনেগেছেন।এমনিতে, আরো অনেক উপায় বা মাধ্যম আছে যেগুলি ডিজিটাল মার্কেটিং বা ইন্টারনেট মার্কেটিং এ ব্যবহার করা হয়।কিন্তু, আজ মূলভাবে আমি যে প্রকার গুলির কথা বললাম, সেগুলি প্রচুর পরিমানে ব্যবহার হচ্ছে।

ডিজিটাল মার্কেটিং এর লাভ কি (Advantages of digital marketing)

আজ ইন্টারনেট এবং ডিজিটাল টেকনোলজির দুনিয়াতে, আপনি যদি নিজের business বা যেকোনো প্রোডাক্ট মার্কেটিং করার কথা ভাবছেন, তাহলে digital marketing এর ব্যাপারে জেনেনেয়াটা আপনার জন্য অনেক জরুরি।কারণ, সাধারণ পুরোনো মার্কেটিং এর মাধমের তুলনায় এর অনেক লাভ বা সুযোগ আজ হয়ে দাঁড়িয়েছে। চলেন তাহলে নিচে এক এক করে আমরা ডিজিটাল মার্কেটিং এর কি লাভ তা জেনেনেই।

Digital marketing এর লাভ –

  1. #Digital marketing আজ যেকোনো জিনিস, কোম্পানি, পণ্য বা সার্ভিসের মার্কেটিং এর সেরা এবং অনেক শক্তিশালী মাধ্যম।
  2. সাধারণ বা পুরোনো মার্কেটিং এর মাধ্যম থেকে অনেক কম খরচেই এর লাভ নেয়া সম্ভব।
  3. ডিজিটাল মার্কেটিং করে আপনি নিজের লক্ষবস্ত গ্রাহক (targeted customer) কে লক্ষ রেখে মার্কেটিং করতে পারবেন।
  4. এই মাধ্যমে মার্কেটিং করার জন্য আপনার কোথাও যেতে হয়না বা কোনো কর্মচারী রাখতে হয়না। পুরোটাই কেবল একটি কম্পিউটার বা মোবাইল এবং ইন্টারনেটের ব্যবহার করেই সম্ভব।
  5. অনেক কম সময়ে ইন্টারনেটের মাধ্যমে আপনি নিজের brand, business বা product অনেক লোক বা ভোক্তার (consumer) কাছে প্রচার বা মার্কেটিং করতে পারবেন।
  6. লক্ষবস্তু ভোক্তাকে টার্গেট করে এই মাধ্যম ব্যবহার করা হয় এবং এর দ্বারা ইন্টারনেটের অনেক মাচা (platform) ব্যবহার করে মার্কেটিং করার ফলে অনেক কম সময়ে, ভালো এবং লাভজনক পরিনাম পাওয়া যায়।
  7. আপনি একটি ছোট পণ্য বিক্রি করতে চাচ্ছেন বা নিজের business এবং brand তৈরি করতে চাচ্ছেন, ডিজিটাল মার্কেটিং দ্বারা এইটা অনেক কম সময়েই সম্ভব।
  8. ইন্টারনেটের মাধ্যমে এই মার্কেটিং হয়, তারজন্নই অনেক সহজে, জলদি এবং লাভজনক ভাবে আপনার বিজ্ঞাপন বা পণ্য লোকেদের মাঝে ছড়িয়ে পরে। তাহলে বন্ধুরা, ডিজিটাল মার্কেটিঙের এমনিতে অনেক লাভ আছে, এবং আমি যতটুকু মনে করি সেগুলি আপনাদের ওপরে জানিয়ে দিলাম।

ডিজিটাল মার্কেটিং কিভাবে শিখবেন ? (Career in digital marketing)

ডিজিটাল মার্কেটিং শিখে এতে ক্যারিয়ার বানানোর কথা যদি আপনি ভাবছেন, তাহলে এইটা আপনার জন্য অনেক সুন্দর সুযোগ হিসেবে প্রমাণিত হতে পারে।

আজ ইন্টারনেট এবং এর ব্যবহার অনেক বেড়ে গেছে, এবং আসছে সময়ে এর ব্যবহার আরো কয়েক গুনে বেড়ে যাবে। এতে ডিজিটাল মার্কেটিং প্রক্রিয়ার ব্যবহার ও বেড়েযাবে আর তাই এর সাথে জড়িত অনেক কোম্পানি গুলিতে চাকরির সুযোগ অনেক হয়ে উঠবে।

যেমন অনেক হোস্টিং কোম্পানি, অনলাইন বিজ্ঞাপনের কোম্পানি, web designing company, email marketing company, Search engine optimization, content marketing, social media marketing আদি এরম অনেক কোম্পানি আছে যেগুলিতে আপনি চাকরি পেতে পারেন যদি আপনার digital marketing এর জ্ঞান বা সার্টিফিকেট (certificate) থাকে। তাই, এই ইন্টারনেট মার্কেটিং ক্ষেত্রে যদি আপনি ক্যারিয়ার বানানোর কথা ভাবছে তাহলে আমার মতে সেটা অনেক লাভ জনক হবে, এবং, আপনি চাইলে যেকোনো institute থেকে Digital marketing course শিখে certificate নিয়ে নিতে পারবেন।

এ ছাড়া, আপনি Google digital garage ওয়েবসাইটের ব্যবহার করে অনলাইন ইন্টারনেটের মাধ্যমে ডিজিটাল মার্কেটিং শিখতে পারবেন।

এবং, এর দ্বারা ডিজিটাল মার্কেটিং শিখলে আপনার পরীক্ষা নেয়া হবে এবং শেষে আপনাকে একটি certificate দেয়া হবে যেটা আপনি চাকরির জন্য এপলাই করার সময় দেখতে পারবেন। এর বাইরে, অনেক অনলাইন ওয়েবসাইট এবং ইউটিউবে ভিডিও রয়েছে যেগুলি দেখে বা পরে আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং শিখতে পারবেন।

শেষ কথা,

তাহলে বন্ধুরা, ডিজিটাল মার্কেটিং এর সম্পর্কে আপনাদের সামান্য কিছু ধারণা দিতে পেরেছি মাত্র। যদি, আপনাদের মনে হয় যে আপনারা ডিজিটাল মার্কেটিং শিখতে চান তাহলে আমার নিচের কমেন্স বক্সে আমাকে জানাতে পারেন যে, আপনি কোন বিষয়টা শিখতে চাচ্ছেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *